আন্তর্জাতিক

‘রোহিঙ্গাদের যত দ্রুত সম্ভব তাদের নিজ দেশে ফিরে যেতে হবে’- পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম বলেছেন, রোহিঙ্গারা তাদের নিজ দেশে ফিরতে ইচ্ছুক হওয়ায় আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের উচিত আন্তরিকভাবে তাদের প্রত্যাবাসনের পরিবেশ তৈরিতে কাজ
করা। তিনি বলেন, ‘রোহিঙ্গাদের যত দ্রুত সম্ভব তাদের নিজ

দেশে ফিরে যেতে হবে।’ বৃহস্পতিবার রোহিঙ্গা শরণার্থী সংকটের টেকসই সমাধান নিয়ে আলোচনার জন্য আয়োজিত এক ভার্চুয়াল সম্মেলনে বক্তব্য প্রদানকালে তিনি এ কথা বলেন। জাতিসংঘের ৭৫
তম সাধারণ অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেয়া বক্তব্যের উদ্ধৃতি দিয়ে তিনি বলেন, সমস্যাটি মিয়ানমার তৈরি করেছে এবং এর সমাধান মিয়ানমারকেই খুঁজে বের করতে হবে। মিয়ানমারের

নৃশংসতা ও সহিংসতার মুখে পালিয়ে আসা নিপীড়িত রোহিঙ্গাদের প্রতি নিঃশর্ত এবং অগাধ মানবিকতা প্রদর্শন করে প্রথম
সহায়তাকারী দেশ হিসেবে বাংলাদেশই এগিয়ে এসেছিল বলে উল্লেখ করেন শাহরিয়ার আলম। তিনি বলেন, ‘যখন দ্বিতীয় কোনো দেশ রোহিঙ্গাদের দায়িত্ব নিতে রাজি ছিল না, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাই কেবল দেশের সীমান্ত খুলে দিয়েছিলেন এবং লাখ লাখ রোহিঙ্গার জীবন রক্ষা করেছিলেন।’ গত তিন

বছরে প্রত্যাবাসনের অগ্রগতির অভাবে বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের মধ্যে ব্যাপক হতাশার সৃষ্টি হয়েছে। এ জন্য তারা মানবপাচার, মাদক ব্যবসাসহ বিভিন্ন অপরাধমূলক কার্যকলাপে জড়িয়ে পড়ছে, বলেন প্রতিমন্ত্রী। নিরবচ্ছিন্ন মানবিক সহায়তার পাশাপাশি রোহিঙ্গাদের জরুরি প্রত্যাবাসন বাস্তবায়নের জন্য প্রয়োজনীয় রাজনৈতিক পদক্ষেপ গ্রহণ করতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে আহ্বান জান

তিনি। ‘এটিই হবে নিপীড়িত এ সম্প্রদায়ের জন্য সত্যিকারের এবং মূল্যবান পরিষেবা,’ বলেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী। দাতা সম্মেলনে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করছেন তিনি। এ সম্মেলনে রোহিঙ্গা এবং অন্যান্য বাস্তুচ্যুত মানুষদের তাদের নিজ দেশ বা পছন্দসই জায়গায় স্বেচ্ছা, নিরাপদ, মর্যাদাপূর্ণ এবং টেকসই প্রত্যাবাসনের বিষয়ে আলোচনা করেছেন যৌথ আয়োজকরা। ভার্চুয়াল এ সম্মেলনে রোহিঙ্গা, তাদের আশ্রয়দাতা এবং মিয়ানমারে অভ্যন্তরীণভাবে

বাস্তুচ্যুত মানুষের জন্য সহায়তা বাড়াতে দেশগুলোর প্রতি অনুরোধ জানিয়েছে আয়োজকরা। জাতিসংঘ এ বছর বাংলাদেশে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের মানবিক চাহিদা মেটাতে এক বিলিয়ন ডলারেরও বেশি সাহায্যের আবেদন করলেও এখন পর্যন্ত অর্ধেকেরও কম অর্জিত হয়েছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close