আন্তর্জাতিক

ভারতের বিরুদ্ধে লড়তে চেয়েছিলেন, আবারো বোমা ফাটালেন শোয়েব আখতার

আফ্রিদির সঙ্গে পাল্লা দেওয়া শুরু করেছেন শোয়েব আখতার। এতদিন পর্যন্ত ভারতবিরোধী কথাবার্তার জন্য শাহিদ আফ্রিদি জনপ্রিয় ছিলেন তার দেশে। এবার তাকে সরিয়ে নিজেই ফোকাস-এ আসতে চাইছেন আখতার। তিনি পাকিস্তানের এক টিভি চ্যানেলে

সাক্ষাত্কার দিতে বসে পুরনো কথা ওঠায় শেহবাগের গায়ে হাত দেওয়ার কথা বলেছিলেন। শোয়েব দাবি করেছিলেন, বীরুর সেই কথাগুলোর জন্য সেদিন উনি তাকে ছেড়ে দিতেন না। মাঠেই পেটাতেন। আবার হোটেলে গিয়েও মারতেন। এমন কথা শোনার পর এমনিতেই ভারতীয় ক্রিকেট সমর্থকরা তার উপর চটেছেন

এবার আকতার বলছেন, তিনি নাকি কার্গিল যুদ্ধের সময় ভারতের বিরুদ্ধে লড়ার জন্য প্রস্তুত হয়ে ছিলেন। ৪৪ বছর বয়সী আখতার ৪৪৪টি উইকেটের মালিক। তিনি বলেছেন, একটা সময় কাউন্টি ক্রিকেটে খেলার লোভনীয় প্রস্তাব এসেছিল তার কাছে। কিন্তু তিনি সেই প্রস্তাব ফিরিয়ে দেন। কারণ সেই সময় কার্গিলের যুদ্ধ

চলছিল। তাই তিনি যে কোনো সময় সেনায় যোগ দিয়ে দেশকে সেবা করার জন্য অপেক্ষা করছিলেন। শোয়েব বলেন, ”অনেকেই এই ব্যাপারটা জানে না। আমি আজ পর্যন্ত সেভাবে বলিনি। এক লাখ ৭৫ হাজার পাউন্ডের চুক্তিতে কাউন্টি ক্রিকেটে খেলার প্রস্তাব দিয়েছিল একটি দল। এর পর আরও একটি কাউন্টি দল আমাকে
খেলার জন্য ডেকেছিল। কিন্তু আমি সবার প্রস্তাব ফিরিয়ে দিই।

কারণ সেই সময় কার্গিলের যুদ্ধ চলছিল। আমি লাহোরে ছিলাম। একজন জেনারেল বললেন, আপনি এখানে কী করছেন! আমি বললাম, আমরা একসঙ্গেই মরব। আমি আমার কাশ্মীরে এক
বন্ধুকে ফোন করে বললাম, ভারতের বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য

আমি প্রস্তুত। ভারতীয় মিডীয়ার দাবি, শোয়েব আখতার পাকিস্তানি সেনার কোনও দোষ দেখছেন না। তিনি কার্গিল যুদ্ধের আসল কারণ নিয়ে কোনও কথা বলেননি। শুধু বলেছেন, সেই সময় তিনিও সেনায় যোগ দিয়ে লড়তে চেয়েছিলেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close