জাতীয়

এসআই আকবরকে ধরিয়ে দিলে ১০ লাখ টাকা পুরস্কার

সিলেটের বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়িতে নির্যাতনে রায়হান আহমেদের মৃত্যুর ৬ দিন পেরিয়ে গেলেও এখন পর্যন্ত এ ঘটনায় কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। রায়হান হত্যার

ঘটনার অগ্রভাগে থাকা বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ (বরখাস্ত) এসআই আকবর হোসেন ভূঁইয়ারও হদিস পাচ্ছে না পুলিশ। ঘটনার পর থেকে বরখাস্ত ও প্রত্যাহার হওয়া দুই এএসআই ও চার কনস্টেবল পুলিশের পাহারায় সিলেট পুলিশ

লাইন্সে রয়েছেন। পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) ঘটনার মূল রহস্য উদঘাটনের জন্য ইতোমধ্যে কাষ্টঘর এলাকার সুইপার কলোনির সুলাই লালসহ দুই জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে। আর মূল হোতা এসআই আকবরসহ জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতারের

দাবিতে উত্তাল রয়েছে সিলেট। এদিকে এসআই আকবর হোসেন ভূঁইয়াকে ধরিয়ে দিলে বা গ্রেপ্তার করতে পারলে ১০ লাখ টাকা পুরস্কার ঘোষণা করেছেন এক প্রবাসী। সামাদ খান নামের ওই যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী গতকাল সোমবার দুপুরে এ ঘোষণা দেন।

সামাদ খানের বাড়ি গোলাপগঞ্জে। তার এ ঘোষণা ইউটিউব চ্যানেল সিলেটি টিভি’ প্রচার করে। নিউজার্সিতে ইউটিউব চ্যানেলটিকে সামাদ খান বলেন, এসআই আকবর ভূঁইয়াকে আগামী ৭২ ঘণ্টার মধ্যে যদি কেউ ধরিয়ে দিতে পারেন বা পুলিশের কেউ যদি গ্রেপ্তার করতে পারেন তাকে দশ লাখ টাকা পুরস্কার দেওয়া হবে। সামাদ খান এ বিষয়ে তার সঙ্গে মেসেঞ্জার বা +১ (৮৬২) ৬০০-১৫৮৮

নম্বরে যোগাযোগ করতে বলেছেন। এ প্রসঙ্গে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার (গণমাধ্যম) আশরাফ উল্লাহ তাহের বলেন, প্রবাসীর ওই ঘো’ষণা তার নিজস্ব। ব্যক্তিগতভাবে তিনি পুরস্কারের কথা বলেছেন। আমরা এ নিয়ে কিছু বলব না। পুলিশ যা করণীয় করে যাচ্ছে। ১১ অক্টোবর নগরীর আখালিয়া নেহারিপাড়ার বাসিন্দা রায়হান আহমদকে বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়িতে আ’টকে রেখে নির্যাতন করে হত্যা করা হয়। পুলিশের

পক্ষ থেকে প্রথমে রায়হান ছিনতাইকালে গণপিটুনিতে নিহত হন বলে দাবি করা হয়। তবে নির্যাতন করে হত্যার বিষয়টি প্রকাশ পেলে তোলপাড় শুরু হয়। ওই ঘটনায় ১৩ অক্টোবর অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের আসামি করে কোতোয়ালি থানায় হত্যা মামলা করেন

রায়হানের স্ত্রী। পরে এসআই আকবর, কনস্টেবল হারুনুর রশিদ, তৌহিদ মিয়া ও টিটু চন্দ্র দাসকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close