আলোচিত বাংলাদেশ

ভিপি নুরুল হক নুরকে গ্রে’প্তার না করলে দেশ অচলের ঘোষণা ছাত্রলীগের

ডাকসু সাবেক ভিপি নুরুল হক নুরসহ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর করা মা’মলায় বাকি আসামীদের দ্রু’ত গ্রে’’প্তার করতে আল্টিমেটাম দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি সনজিত চন্দ্র

দাস। তিনি বলেছেন, ‘‘এ মা’মলার আসামীদের দ্রু’ত গ্রে’’প্তার না করলে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ সারাদেশ অচল করে দেবে’’। আজ শুক্রবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে আয়োজিত এক সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন। দেশের ধ’র্ষণ নি’পীড়নে জ’ড়িত সকল আ’সামি ও পৃষ্ঠপোষকদের গ্রে’’ফতার এবং

ধ’র্ষকদের মৃ’ত্যুদ’ণ্ডের দাবিতে এ বি’ক্ষো’ভ মিছিল ও সমাবেশের আয়োজন করা হয়। বংলাদেশ ছাত্রলীগ এর আয়োজন করে। সনজিত চন্দ্র দাস বলেন, ধ’র্ষণ
মা’মলার আসামী নুর-মামুনদের অতি দ্রু’ত গ্রে’’প্তার না করলে সারা বাংলাদেশ অচল করে দেয়া হবে। ছাত্রলীগ চাইলে সারা বাংলাদেশ সচল করতে পারে; আবার চাইলে অচলও করে দিতে পারে। শাহবাগে চলমান বাম সংগঠনের আন্দোলনকারীদের

উদ্যোশ্যে করে সনজিত বলেন, প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে শাহবাগে আপনারা (বাম সংগঠনের নেতাকর্মী) যে ধৃষ্টতা দেখিয়েছেন তার মাধ্যমে সীমালঙ্গন করেছেন। তিনি বলেন, এরপর যদি
আরেকবার এ ধরনের ধৃষ্টতা দেখানোর সাহস করেন তাহলে শাহবাগে আপনাদের (আন্দোলনকারীদের) পিষে দেয়া হবে। কোনো প্রশাসন, মিডিয়া, ছাত্র সংগঠনকে আমরা ভ’য় পাইনা। সনজিত বলেন, সারা বাংলাদেশের যেখানেই ধ’র্ষণের ঘ’টনা ঘটেছে,

সবার আগেই ছাত্রলীগ রাজু ভাস্কর্যে প্র’তিবাদ করেছে। কিন্তু দুর্ভাগ্য হলো বাংলাদেশের মেধাবী তরুণ সত্য ইতিহাস বাদ দিয়ে এখন ফেসবুকের ইতিহাস গ্রহণ করেছে। বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় বলেছেন, নুর গংদের দ্বারা শুরু হওয়া ধ’র্ষণ সারাদেশব্যাপী ছড়িয়ে পড়ছে। বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সকল নেতাকর্মীদের উদ্দেশে করে বলতে চাই, আপনারা সবাই সজাগ থাকুন, পাহারা দিন। কোথাও কোনো ই’ভটিজিং ও

ধ’র্ষণের ঘ’টনা যেন আর না ঘটে। আজ শুক্রবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে আয়োজিত এক সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন। দেশের ধ’র্ষণ নি’পীড়নে জ’ড়িত সকল আ’সামি ও পৃষ্ঠপোষকদের গ্রে’’ফতার এবং ধ’র্ষকদের মৃ’ত্যুদ’ণ্ডের দাবিতে এ বি’ক্ষো’ভ মিছিল ও সমাবেশের আয়োজন করা হয়। বংলাদেশ ছাত্রলীগ এর আয়োজন করে।

ছাত্রলীগ সভাপতি বলেন, তথাকথিত ছাত্র অধিকার পরিষদ বর্তমানে ধ’র্ষক পরিষদে পরিণত হয়েছে। সে পরিষদের নুর গংরা আমার বোনকে ধ’র্ষণ করে আবার লাইভ প্রো’গ্রামে প’তিতা বানায়। যেখানে পাবেন এই নুরু গংদের প্রতিহত করুন। তিনি বলেন, আমাদের বোন ফাতেমার পাশে আমরা ছাত্রলীগ থাকব। দ্রু’ত তাদের (নুর গং) গ্রে’’ফতার করে বিচার না করা পর্যন্ত

বাংলাদেশ ছাত্রলীগ ফাতেমার পাশে থাকবে। বি’ক্ষো’ভ পরবর্তী সমাবেশে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সভপতি সনজিত চন্দ্র দাস, সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। ছাত্রলীগের

সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যের সঞ্চালনায় সমাবেশে অন্যদের মধ্যে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রলীগের সভাপতি মেহেদী হাসান, সাধারণ সম্পাদক জুবায়ের আহমেদ, মহানগর উত্তরের সভাপতি ইব্রাহিম হোসেন, সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান হৃদয় বক্তব্য রাখেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close