আলোচিত বাংলাদেশ

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ছয়জন সদস্য তাদের প্রানের‌ বিনিময়ে আমাদের কে কক্সবাজার মেরিন ড্রাইভ সড়ক উপহার দিয়েছিলো।

আপনি জানেন কি???? বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ছয়জন সদস্য তাদের প্রানের‌ বিনিময়ে আমাদের কে কক্সবাজার মেরিন ড্রাইভ সড়ক উপহার দিয়েছিলো। কক্সবাজার মেরিন ড্রাইভ সড়কে যখন

হিম শীতল বাতাসে মন ভুলিয়ে যায়‌ , তখন আড়ালে রয়ে যায় সেনাদের আত্মত্যাগ। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে কক্সবাজার মেরিন ড্রাইভ সড়ক নির্মাণ করা হয়। কক্সবাজার থেকে টেকনাফ পর্যন্ত ৮০ কিলোমিটার দীর্ঘ মেরিন ড্রাইভ সড়ক নির্মাণ করতে

গিয়ে প্রাণ দিয়েছেন ছয় সেনা সদস্য। ২০১০ সালের জুনে ক্যাম্প করে থাকা সেনা সদস্যদের ওপর পাহাড় ধসে এই প্রাণহানির ঘটনা ঘটে। এই সড়কটি নির্মাণ করতে গিয়ে সেনাবাহিনীকে নানা চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে হয়েছে। নির্মিত সড়ক সমুদ্রে বিলীন হয়ে যাওয়া, লোনা পানিতে নির্মাণ সামগ্রীর ক্ষতি হওয়া, ঝড়,

জলোচ্ছ্বাসের আঘাত ও ভূমিধসসহ নানা সমস্যা মোকাবেলা করে কাজ করেছে সেনাবাহিনী। এর মধ্যে সবচেয়ে বড় বিপর্যয়টি ঘটে ২০১০ সালের ১৪ জুন রাতে। কক্সবাজারের হিমছড়ির ১৭ ইসিবি ক্যাম্পে পাহাড় ধসে ছয় পাঁচ সেনা সদস্যের মৃত্যু হয়। পরদিন বিকালে তাঁদের মধ্যে পাঁচ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়। এঁরা

হলেন ওই ব্যারাকের সার্জেন্ট মো. আবছার (সৈনিক নং-১৪৩৬), কর্পোরাল মো. হাবির (১৪৩৮৫২৭), মো. হুমায়ুন (১৪৪৩০৯৯), সৈনিক মো. ইসমাইল (১৪৪৭৩০৬), মো. মালেক (১৪৪৭৪৯৬)। পরে উদ্ধার হয় নিখোঁজ সৈনিক মো. আসলাম (১৪৪৭৫৯১) এর মরদেহ। এই সেনা সদস্যরা কক্সবাজার থেকে টেকনাফ পর্যন্ত মেরিন ড্রাইভ সড়কটির নির্মাণ কাজে নিয়োজিত ছিলেন।

-বাংলাদেশের সামরিক বাহিনীর কর্মকর্তাগণ দেশের জন্য প্রান দেওয়ার জন্য সবসময় প্রস্তত । এতো আত্মত্যাগের পরেও দিনশেষে যখন কিছু মানুষ খারাপ ভাষায় তাদের গালাগালি করে, নিশ্চয় তারা মানুষের পর্যায়ে পড়ে না!

-যাদের এই আত্নত্যাগের ফলে আমরা দৃষ্টিনন্দন এই সড়ক পেয়েছি তারা যেন পরকালে চির শান্তির জান্নাত পায় মহান আল্লাহ তায়ালার কাছে এই প্রার্থনা রইল!
পড়ার পর শেয়ার করতে ভুলবেন না —

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close